1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : Sports Zone : Sports Zone
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৯:৪৭ অপরাহ্ন

টিকিট সংকটে বাংলাদেশ-মালদ্বীপ ম্যাচেঙ্কত

  • আপডেট সময় বুধবার, ৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৫১ বার পড়া হয়েছে

মঙ্গলবার ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের সময় মালের ন্যাশনাল স্টেডিয়াম মাতিয়ে রেখেছিল প্রবাসী বাংলাদেশি দর্শকরা। হাজার দেড়েক দর্শক স্টেডিয়ামের গ্যালারির এক পাশে জড়ো হয়ে এমনভাবে সমর্থন দিয়েছেন, তাতে মনে হয়েছে জামাল ভূঁইয়ারা যেন দেশের মাঠেই খেলছেন।

মালদ্বীপে যাওয়ার পর বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছিলেন, সেখানে প্রবাসীরা হবেন তাদের জন্য বাড়তি অনুপ্রেরণা। হয়েছেও তাই। বাংলাদেশের জন্য বেশি গুরুত্বপূর্ণ মালদ্বীপ ও নেপালের বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচ। ফাইনালের টিকিট পাওয়া নির্ভর করছে এই দুই ম্যাচের ফলাফলের ওপর। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ খেলবে স্বাগতিকদের বিপক্ষে। কিন্তু এই ম্যাচে নিজ দেশের সমর্থক পাবেন কিভাবে জামাল ভূঁইয়ারা?

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

করোনার কারণে ৫-৭ হাজারের বেশি টিকিট ছাড়ে না আয়োজক মালদ্বীপ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশেন। তবে বৃহস্পতিবারের ম্যাচে আয়োজকরা সর্বোচ্চ ৩০০ টিকিট বরাদ্দ রেখেছেন বাংলাদেশি প্রবাসীদের জন্য।

অথচ এই ম্যাচ দেখার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে উৎসব-উৎসব অবস্থা। টিকিট সংকট হবে জেনে মঙ্গলবার ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে ফিরে গেছেন শতশত প্রবাসী বাংলাদেশি। বিক্রয় বুথ থেকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে-টিকিট শেষ।

মালদ্বীপে আছেন সাফের প্রেসিডেন্ট ও বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। বাংলাদেশ থেকে টুর্নামেন্ট কাভার করতে যাওয়া সাংবাদিকদের মঙ্গলবার মধ্যাহ্নভোজের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন কাজী মো. সালাউদ্দিন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মালেস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত। সেখানেও টিকিট নিয়ে প্রবাসীদের হাহাকারের প্রসঙ্গে আলোচনা হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

টিকিট না পেয়ে কিছু প্রবাসী বাংলাদেশি মঙ্গলবার সকালে জামালদের অনুশীলন মাঠে গিয়েছিল। সেখানে তারা টিকিট বৃদ্ধির উদ্যোগ নিতে অনুরোধ জানিয়েছেন টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে।

সাফের সেক্রেটারি আনোয়ারুল হক হেলাল বলেছেন, টিকিট বিক্রিসহ সব দায়িত্ব আয়োজক মালদ্বীপ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশেনের। তারা নিয়মের মধ্যে থেকেই টিকিট দিচ্ছে। কোনো সমস্যা হচ্ছে না। নিয়মই আছে অ্যাওয়ে দর্শকদের জন্য ৫ থেকে ৬ ভাগ টিকিট বরাদ্দ থাকবে। আমি যতটুকু জানি, ওই ম্যাচের জন্য মোট টিকিট ৫ হাজার। তার ৬ ভাগই দেয়া হচ্ছে বাংলাদেশের জন্য।

 

 

 

 

 

তবে কিছু টিকিট বরাদ্দ বাড়ানো যায় কিনা সে চেষ্টাও চলছে বলে জানিয়েছেন আনোয়ারুল হক হেলাল। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে মালেস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মালদ্বীপের ক্রীড়ামন্ত্রীকে বলেছেন কিছু টিকিট বাড়ানোর জন্য। মন্ত্রী তাকে বলেছেন, দেখবেন। তবে কতটুকু পারবেন বুঝতে পারছি না। আসলে মালদ্বীপে বাংলাদেশি বেশি বলেই বিষয়টি বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। অন্য অতিথি দেশের খেলার সময় এমন হয় না।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2021 SportsZonebd
Theme Customized By BreakingNews